ভিডিও এবং ফটোগ্রাফির লাইটিং এর ক্ষেত্রে কিছু পরিচিত যন্ত্রাংশ ব্যবহার করা হয়।
১৮% গ্রে কার্ড (18% Gray Card): এটি একটি গ্রে কালারের কার্ড, যার ওপর আলো ফেলা হলে ১৮ শতাংশ আলো প্রতিফলিত হয়। এটি লাইট মিটার ও এক্সপোজার ঠিক করার জন্য প্রয়োজন হয়।

ব্যালাস্ট (Ballast): এটি এমন একটি ডিভাইস যা লাইটে ইলেকট্রিকাল কারেন্টের প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করে।

কনসোল (Console): এটি একটি হার্ডওয়ার ও সফটওয়ার সিস্টেম যা লাইটিং নিয়ন্ত্রণ করে। এটি অপারেট করে একজন লাইটিং টেকনিশিয়ান। কনসোল সাধারণত স্টেজ এবং স্টুডিওর লাইটিং করার ক্ষেত্রে ব্যবহার হয়।

lighting-Console

লাইট মিটার (Light Meter): লাইট মিটার দিয়ে লাইটের পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়। এটি একটি আইডিয়ার এক্সপোজার সেটিং করতে সাহাজ্য করে। লাইট মিটারকে এক্সপোজার মিটার নামেও চেনেন অনেকে।

Light-Meter

রিফ্লেক্টর বোর্ড (Reflector Board): এটি স্পেশালি ডিজাইন করা একটি বোর্ড যা, সেকেন্ডারি লাইট সোর্স হিসেবে কাজ করে। এটি ওজনে খুবই হালকা এবং এটিকে ভাজ করা যায়। এই বোর্ড ভাঁজ করে বহনও করা যায়।

Reflector-Board

জেল (Gel): জেল সাধারণত লাইটের সামনে লাগানো হয়। এর ব্যবহারে একটি লাইটের রঙ পরিবর্তন হয়ে যায়। যে রঙের জেল ব্যবহার করা হয়, লাইটের রঙ তাতেই পরিবর্তন হয়ে যায়।

স্পেকট্রোমিটার (Spectrometer): এটি একটি প্রফেশনাল লেভেলের যন্ত্র, এটি লাইটের স্প্রেকট্রাম নির্ধারণের কাজে ব্যবহার করা হয়। এক কথায় বলা চলে, স্পেকট্রোমিটার ইলেকট্রোম্যাগনেটিক স্পেকট্রাম নির্ধারণ করে। এটি লাইটের রেডিয়েশন ইনটেনসিটি পরিমাপ করে।

স্ট্যান্ড এবং ক্ল্যাম্প (Stands & Clamps): এটি লাইটকে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় ধরে রাখতে সাহাজ্য করে। এর ওপর লাইট সেট করে রাখা হয়।

Stands-&-Clamps