পছন্দ মতন ছবির সাইজ নির্ধারন করুন

0

ক্যামেরা সাধারনত ঠিক করে দেয় আপনি কত বড় সাইজ ছবি তুলতে পারবেন, তবে বেশির ভাগ কামেরাই ছোট সাইজের ছবি তোলার অপশন(option) থাকে। আপনি কোথায় কেমন ছবির সাইজ ব্যাবহার করতে পারেন তার একটি ধারনা নিম্নে দেয়া হলঃ

ইন্টারনেটেঃ ইন্টারনেটে যে সকল ছবি থাকে তাদের রেজুলেশন সাধারনত 1280×1024, 1152×864, 1024×768, 800×600 বা 640×480 হয়। কয়েক বছর পূর্বে 1024×768 মনিটর খুব কম ছিল তাই অনেকেই ধরে নিয়েছিল কমন স্ক্রিন সাইজ হল 640×480 এবং সবচেয়ে ভালো 800×600। তাই ই-মেইল করা বা ওয়েবে পোস্ট করার ক্ষেত্রে 800×600 অপেক্ষা বড় সাইজের ছবি ব্যাবহার করা হত, যাতে অধিকাংশ কম্পিউটারে এটি সঠিকভাবে দেখা যায়। যদি ছবিটি বড় হয় তাহলে ছবিটি একবারে দেখা যাবেনা, স্ক্রল(scrool) করে করে দেখতে হবে। বেশী ছোট হলে ছবি স্পষ্ট হবেনা। ছোট সাইজের ছবি ইন্টারনেটে লোড হতে কম সময় লাগে, তাই দ্রুত দেখা যায়।

লেজার এবং ইঞ্জেক্ট (laser and inject) প্রিন্টারঃ লেজার এবং ইঞ্জেক্ট প্রিন্টারের ক্ষেত্রে ছবির প্রতি ইঞ্চিতে ২০০-৩০০ পিক্সেল প্রয়জন। আপনার ক্যামেরা যদি ২৪০০ পিক্সেল প্রসস্থ ছবি তুলতে পারে তাহলে ১২ ইঞ্চি প্রসস্থ প্রিন্টের বেলায় ভালো ফল আশা করা যায়।

প্রিন্টিং প্রেসে প্রিন্ট করার ছবিঃ প্রিন্টিং প্রেসে সাধারনত ক্যাটালগ(catalog) তৈরির জন্য ছবি প্রিন্ট করা হয়। ছবির পিক্সেলগুলো ডট হিসাবে কাগজে প্রিন্ট হয়। যে ছবিটি প্রিন্ট করা হবে তাকে আগে ডটে বিভক্ত করার জন্য ডিজিটাল্লি স্ক্রিনড(digitally screen) করা হয়।

photo size

উপরের ছবিতে দুইটি ছবি দেয়া হল যাদের প্রিন্ট করা হবে বা ডিসপ্লে হবে ৪×৫ সাইজে। বড় ছবিটি(১৫০০×১২০০) প্রিন্ট হবার সময় প্রতি ইঞ্চিতে ৩০০ ডট থাকবে। ছোট ছবিটির ক্ষেত্রে প্রতি ইঞ্চিতে ডট হবে ৭২টি। যদিও তাদের পিক্সেল সংখ্যায় বিশাল ব্যাবধান কিন্তু আলাদা আউটপুট ডিভাইসে তাদের একই সাইজের দেখাবে।

Comment

comments

Comments are closed.