RAM (র‍্যাম)

0

RAM (র‍্যাম) , CPU-এর অভ্যন্তরীণ মেমরি হিসাবে তথ্য , প্রোগ্রাম এবং প্রোগ্রাম ফলাফল জমা করার জন্য ব্যবহৃত হয়। এটাকে random access memory (RAM) বলা হয়।
RAM এর মধ্যে প্রবেশাধিকার সময় যেহেতু শব্দ, ঠিকানার ক্ষেত্রে স্বাধীন; সেহুতু মেমরি ভিতরে প্রতিটি সংগ্রহস্থলের অবস্থান হিসাবে, অন্যান্য অবস্থানে পৌঁছানোর হিসাবে সহজ ও সময় একই পরিমাণ লাগে। আমরা একের পর এক ও অত্যন্ত দ্রুত এ মেমরিতে পৌঁছতে পারি কিন্তু ব্যপারটা বেশ ব্যয়সাপেক্ষ হতে পারে।
র‍্যামের ডাটা হচ্ছে পরিবর্তনশীল, কম্পিউটারের সুইচ বন্ধ করার সময় অথবা পাওয়ার বন্ধ হলে এটি মধ্যে সংরক্ষিত তথ্য/ ডাটা নষ্ট হয়ে যায়। তাই, একটি ব্যাকআপ আনইনটারাপ্টিবল পাওয়ার সিস্টেম ( ইউ.পি. ) প্রায়ই কম্পিউটারের সাথে ব্যবহার করা হয়। র‍্যাম তার ক্ষমতার এবং তা ধরে রাখতে পারার তথ্যের পরিমাণ উভয়ের পরিপ্রেক্ষিতে ছোট।
র‍্যাম দুই ধরনের হয় :
• স্ট্যাটিক র‍্যাম ( SRAM )
• ডাইনামিক র‍্যাম ( DRAM )

 

স্ট্যাটিক র‍্যাম ( SRAM )
স্ট্যাটিক শব্দটি দ্বারা বুঝায় মেমরিতে যতদিন পাওয়ার প্রয়োগ করা হবে ততদিন পর্যন্ত এর বিষয়বস্তু অপরিবর্তিত অবস্থায় প্রদর্শিত হবে। তবে, পাওয়ার কারণে অস্থায়ী প্রকৃতির কারণে যখন পাওয়ার চলে যায় তখন তথ্য নষ্ট হয়ে যায়। SRAM গুলো একটি ম্যাট্রিক্স ব্যবহার করে ৬ টি ট্রানজিস্টর চিপ দিয়ে গঠিত। ট্রানজিস্টরে ফুটো প্রতিরোধের জন্য কোন শক্তি প্রয়োজন হয় না। তাই র‍্যাম নিয়মিত রিফ্রেশ করারও প্রয়োজন হয় না।
কারণ ম্যাট্রিক্স মধ্যে অতিরিক্ত স্থান থাকার কারণে; স্টোরেজ স্পেস একই পরিমাণ জন্য SRAM, DRAM চেয়ে বেশী চিপ ব্যবহার করে, ফলে উৎপাদন খরচ বেশী হয়।
ক্যাশ মেমরি খুব দ্রুত এবং ছোট করার প্রয়োজন হিসাবে স্ট্যাটিক র‍্যাম ব্যবহার করা হয়।
স্ট্যাটিক র‍্যামের বৈশিষ্ট্য :
• এর দীর্ঘ তথ্য ধারনক্ষম জীবনকাল আছে।
• রিফ্রেশ করার কোন প্রয়োজন নেই।
• দ্রুত।
• ক্যাশ মেমোরি হিসেবে ব্যবহার করা হয়।
• বড় আকারের।
• ব্যয়বহুল।
• উচ্চ ক্ষমতা গ্রহণ।

ডাইনামিক র‍্যাম ( DRAM )
DRAM ও SRAM ভিন্ন, ক্রমাগত এটির তথ্য বজায় রাখার জন্য যাতে রিফ্রেশ করা আবশ্যক। এই তথ্য প্রতি সেকেন্ডে কয়েক শত বার নতুন করে লেখা একটি রিফ্রেশ সার্কিট নেভিগেশন মেমরি স্থাপন দ্বারা সম্পন্ন করা হয়। এটি সস্তা এবং ছোট তাই DRAM সবচেয়ে বেশি সিস্টেম মেমরির জন্য ব্যবহার করা হয়। সমস্ত DRAMs মেমরি, মেমরি কোষদ্বারা গঠিত হয়। এই কোষ একটি ক্যাপাসিটর এবং এক ট্রানজিস্টার দ্বারা গঠিত হয়।
ডাইনামিক র‍্যাম এর বৈশিষ্ট্য :
• এটির তথ্য সংক্ষিপ্ত জীবনকাল আছে।
• ক্রমাগত রিফ্রেশ প্রয়োজন।
• র‍্যাম SRAM তুলনায় ধীরে।
• র‍্যাম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে।
• মাপের ছায়ে ছোট।
• কম ব্যয়বহুল।
• কম বিদ্যুত ব্যবহার করে।

Comment

comments

Comments are closed.