BIOS আপডেট করতে হবে যেভাবে

0

পুরাতন কম্পিউটারে সম্ভভ না হলেও বর্তমান কম্পিউটারে ফ্লাস BIOS ব্যাবহার করার হয়।তাই ইউজার এখন মাদাবোর্ডের BIOS চিপকে আপডেট করে নিতে পারে সফটওয়্যার প্রোগাম ব্যাবহার করে।নিচে এই সফটওয়্যার প্রোগামের সুবিধাগুল দেয়া হয়েছে।

১/ কম্পিউটারে নতুন হার্ডওয়্যার যুক্ত করার ক্ষমতা দেয়। ২/BIOS সেটআপ স্ক্রিনে এডিসনাল অপশন যোগ করে।

৩/ হার্ডওয়্যারের ক্যাপাসিটি আপডেট এবং বৃদ্ধি করে। ৪/ স্টাটআপ লোগো আপডেট করে।

BIOS আপডেট খুব বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে যদি ইউজার এর ব্যাপারে সঠিক তথ্য এবং পদ্ধতি না জানে। ভুল আপডেট করলে অথবা ঠিক মত আপডেট না করতে পারলে কম্পিউটার বুট নাও নিতে পারে।তাই নিচের কিছু পদ্ধতি আপনাকে জেনে নিতে হবে আপডেট করার পূর্বে।

#মাদারবোর্ড প্রস্তুতকারকের কাছ থেকেই  আপডেট সংগ্রহ করা উচিত।

#BIOS নির্দেশনা দেয়া না পর্যন্ত কম্পিউটার বন্ধ কিংবা রি-বুট করা উচিত না।

#যে সমস্যার প্রতিকার করার জন্য আপডেট করছেন সেই সমস্যা BIOS আপডেট প্রতিকার করতে পারবে কিনা তা যাচাই করে নেয়া উচিত।

#আপডেট করার পূর্বে আপনি যে ভার্সনটি আপডেট করতে চলেছেন তা নতুন ভার্সন কিনা তা জেনে নিন।

# আপডেটের পূর্বে যাচাই করে নিন কম্পিউটারটি ভাইরাস স্ক্যান করা হয়েছে কিনা।

#যদি আপনি ল্যাপটপের BIOS আপডেট করতে চান তাহলে যাচাই করে নিন এটি এসি ক্যারেন্টের সাথে যুক্ত আছে কিনা।

#অবশেষে যখন আপডেট করবেন তখন সম্পুর্ন পদ্ধতি এবং নির্দশিকা পরে নিন।

যদি আপনার কম্পিউটার কাজই না করে তাহলে আপনি কখনই আপডেট ডাউনলোড করতে পারবেন না।তখন আপনাকে অন্য কোন কম্পিউটার থেকে BIOS আপডেট ডাউনলোড করে নিতে হবে।

BIOS ভার্সন দেখবেন যেভাবেঃ

বেশিরভাগ কম্পিউটারেরই বুট নেবার সময় BIOS ভার্সন দেখায়।যদি আপনার দেখতে অসুবিধা হয় তাহলে আপনি বুট নেবার সময় PAUSE বাটন চাপলে বুট ম্যসেজ দেখাবে,যেখানে BIOS ভার্সন থাকবে।যদি এইভাবে আপনি BIOS ভার্সন না দেখতে পারেন তাহলে আপনার কম্পিউটারের মাদারবোর্ডের প্রস্তুতকারি কম্পানির ওয়েবসাইটে যান।

যেভাবে ইনস্টল করবেন BIOS আপডেটঃ

বেশিরভাগ BIOS আপডেটই যা ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করা হয়,কম্পিউটারে একটাই ডিস্কেট তৈরি করে এবং নিজে নিজেই আপডেট হতে থাকে।তাই আপডেট ইনস্টল করা নিয়ে ইউজারের চিন্তা না করলেও চলে।

Comment

comments

Comments are closed.