ওয়াইডস্ক্রিন কেন?

0

বর্তমানের অত্যাধুনিক টেলিভিশন জগত যেভাবে ট্রাডিশনাল ৪:৩ ফরমেট থেকে বের হয়ে, ১৬:৯ ফরমেটে পৌঁছেছে, তখন অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছে, কেন এই পরিবর্তণ? আমারও কি ওয়াইডস্ক্রিন ফরমেটে যাওয়া উচিৎ ?
এই প্রশ্নগুলো একজন পরিচালক ও একজন দর্শক উভয়ের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য, কারণ-
১. প্রযোজক এবং সম্প্রচারক উভয়কে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে সে ওয়াইডস্ক্রিন ট্রানজিশনে যেতে চায় কি না।
২. আর দর্শকদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে, তারা ৪:৩ রেশিওর টিভির পরিবর্তে ওয়াইডস্ক্রিন টিভি কিনবেন কি না।

এ প্রশ্নের উত্তর দুই পক্ষের কথা চিন্তা করেই দেয়া যায়। ভবিষ্যতের কথা বলতে গেলে বলা যায়, আধুনিক প্রযুক্তির এই যুগে সামনের দিনে সবকিছুই উন্নত হবে। উন্নত হবে টেলিভিশনে ব্যবহৃত প্রযুক্তিও। আপনি পছন্দ করেন আর নাই করেন টেলিভিশনে ওয়াইডস্ক্রিন রেশিও আসবেই। তাই আমি কি ওয়াইডস্ক্রিনে যাব? এমন প্রশ্ন না হয়ে প্রশ্ন হওয়া উচিৎ, আমি কি এখনই ওয়াইডস্ক্রিনে যাব নাকি অপেক্ষা করব।

S0752_Anamorphic

প্রথমে কিছু সাধারণ প্রশ্নের উত্তর খোঁজা যাক
ওয়াইডস্ক্রিন কি ৪x৩ ফরমেটের চেয়ে ভাল?

এটি একটি বিষয়ভিত্তিক প্রশ্ন, এক্ষেত্রে সবার শতভাগ সম্মতি নাও থাকতে পারে। তবে উত্তর হলো, হ্যা। ওয়াইডস্ক্রিন মানুষের দেখার ক্ষেত্রে অনেক বেশি প্রাকৃতিক। এতে ৪x৩ ফরমেটের চেয়ে বড় আকৃতির ছবি দেখা যায়। ওয়াইডস্ক্রিনের দু-পাশেই ৪:৩ এর চেয়ে বড় ছবি আসে।

ওয়াইডস্ক্রিন কখন প্রভাবশালী ফরমেট হয়ে উঠবে
আসলে আপনি কোথায় বাস করছেন এটি তার উপর নির্ভর করবে। আপনি স্থানীয় ক্যাবল অপারেটর অথবা ডিলারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। বর্তমানে বেশিরভাগ উন্নত দেশেই ওয়াইডস্ক্রিন পছন্দের একটি ফরমেট। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই হয়ত ৪:৩ ফরমেট পুরনো হয়ে যাবে। এটি হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

কেন ওয়াইডস্ক্রিন প্রোগ্রাম তৈরি করবেন
প্রোডাকশন কোম্পানিগুলোর জন্য ৪:৩ থেকে ওয়াইডস্ক্রিনে কনভার্ট হওয়াটা কষ্টকর ও ব্যয়বহুল। কিন্তু ওয়াইডস্ক্রিনের যতটা চাহিদা রয়েছে তাতে আজ অথবা কাল তাদের এই ফরমেটে আসতেই হবে। বড় বাজেটের প্রোডাকশনে এই উদ্যোগ খুব কম সময়েই আসবে। তবে ছোট বাজেটের প্রোগ্রামে এটি আসতে কিছুটা বেশি সময় লাগবে। তবে, আসতেই হবে, কারণ বাজারে এর চাহিদা দিনের পন দিন বেড়েই চলেছে।

Example

এসব বাণিজ্যিক কারণ ছাড়াও আরও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কারণ রয়েছে
যেমন-
১. বেশিরভাগ দর্শকই এখন ওয়াইডস্ক্রিন দেখতে চান। যে সব প্রোগ্রামগুলো এই ফরমেটে বানানো হবে তা দর্শক বেশি পছন্দ করবে, এবং এর গুরুত্বও বাড়বে।
২. থিয়েটারে প্রদর্শনের জন্য ছবিতে যে স্ক্রিন রেশিও ব্যবহার করা হয়, সেই একই রেশিও টিভি প্রোগ্রাম বানানোর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হলে, তা রেশিও কনভার্ট করার কাজ অনেকটাই সহজ করে দেয়।
৩. ওয়াইডস্ক্রিনের চারপাশ বড় হওয়ায় জায়গাও থাকে বেশি। ফলে বিভিন্ন প্রোগ্রামের ক্ষেত্রে এটি অতিরিক্ত সুবিধা দিয়ে থাকে, তবে শুধু ফিচার ফিল্মের ক্ষেত্রে নয়, কখনও কখনও খেলার প্রোগ্রামের ক্ষেত্রেও ওয়াইডস্ক্রিন অতিরিক্ত সুবিধা দিয়ে থাকে।
৪. অনেকগুলো ছবি নিয়ে বিভক্ত পর্দার ক্ষেত্রে ওয়াইডস্ক্রিন অনেক বেশি সুবিধা দিয়ে থাকে। যেমন- একসঙ্গে দুটি বা তার বেশি ক্যামেরার ছবি দেখা।
শেষ পর্যন্ত ফিল্ম নির্মাতাদের ওয়াইডস্ক্রিন ফরমেটেই ছবি বানাতে হবে, কারণ দর্শকের চাহিদা এটি। মার্কেটের ডিমান্ড এখন ওয়াইডস্ক্রিন।

Comment

comments

Comments are closed.