চার্লস ও’রেয়ার ( Charles O’Rear )

0

বর্তমান টেক দুনিয়ায় ছবিটি দেখেননি এমন লোক পাওয়া অনেকটাই অসম্ভব এটিই বিশ্বের সবচেয়ে বেশিবার দেখা ছবি। ছবিটিতে গাড় সবুজ ঘাসে ঢাকা একটি খোলা প্রান্তরের উপরে ঝকঝকে নীল আকাশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা কয়েক টুকরা সাদা মেঘ দেখা যায়। মাটি আর আকাশের অদ্ভুত এক কম্পোজিশন! কম্পিউটার ব্যবহার কারীদের কাছে, বিশেষ করে যারা উইন্ডোজ XP ব্যবহার করেন বা অতীতে করেছেন, তাদের কাছে এটি খুবই পরিচিত একটি ছবি। উইন্ডোজ XP তে এ ছবিটি ওয়ালপেপার হিসেবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্বাচিত হয়ে থাকে। উইন্ডোজ XP -এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট এ ছবিটিকে ‘ব্লিস’ নাম দেয়। আর তারপর থেকেই সারা পৃথিবীতে ছবিটি এ নামেই পরিচিতি পেয়ে যায়। তবে নেদারল্যান্ডসের অনেকে ছবিটিকে ‘আয়ারল্যান্ড’ নামে ডাকেন। এ কারনে অনেকের ধারনা, ছবিটি হয়তো আয়ারল্যান্ডের কোথাও তোলা। অনেকে আবার এ ছবিটিকে কৃত্রিমভাবে তৈরিও মনে করেন। আসলে ছবিটি আয়ারল্যান্ডেও তোলা নয়, আর কৃত্রিম তো নয়ই। পৃথিবীর সর্বাধিক পরিচিত এ ছবিটি ১৯৯৬ সালে ক্যামেরাবন্দি করেন বিখ্যাত মার্কিন ফটোগ্রাফার চার্লস ও’রেয়ার Charles O’Rear।

চার্লস ও'রেয়ার 1

এক শীতের সকালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার নাপাভ্যালীর একটি মহাসড়ক থেকে মাঝারি মানের একটি ক্যামেরায় আলো আর নীলের মাঝে ঘাস আর মেঘের অদ্ভুত কম্বিনেশনের এই ছবিটি তুলেছিলেন ও’রেয়ার। কয়েক বছর পর মাইক্রোসফট যখন ছবিটি কিনে নেয় এবং ব্যবহার করা শুরু করে, তখন থেকেই ছবিটি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এবং খুব অল্প সময়ের মধ্যেই এটি পৃথিবীর সবচেয়ে বেশিবার দেখা ছবি বা সর্বোচ্চ ব্যবহৃত ছবিতে পরিণত হয়। মজার ব্যাপার হলো, ও’রেয়ার নিজে তাঁর কম্পিউটার চালুর পর এ ছবিটি দেখার সুযোগ পান না, কারণ তিনি ব্যবহার করেন অ্যাপলের ম্যাক, যেটি অ্যাপলের নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেমে চলে

Comment

comments

Comments are closed.