টিপস্‌ এন্ড ট্রিকস্‌

ওয়েব হোস্টিং

নিজের একটা ওয়েব সাইট থাকুক কে না চায়। ডোমেইন, সার্ভার কিনতেও খুব একটা টাকা খরচ হয় না। কিন্তু সার্ভার টা যদি হয় আপনার নিজের এবং ফ্রি তাহলে তো কোন কথাই নাই। খুব সহজেই আপনার ওয়েব সাইটটি আপ করতে পারবেন এবং বিনামূল্যে।

এখন আসা যাক মূল কথায়:

যা লাগবে:

১। ড্রপ বক্স অ্যাকাউন্ট। এটি ক্লাউড স্টোরেজ হিসেবে কাজ করে এবং আপনার ডিভাইস গুলোর মধ্যে সিংক রাখবে। https://www.dropbox.com/

২। ওয়েব সাইট বিল্ডার। আমি আই ওয়েব ব্যবহার করছি। প্লাটফর্ম অনুযায়ী আপনার পছন্দসই সফটওয়্যার টি বেছে নিন। ড্রিম ওয়েভার দিয়ে কাজ করতে বেশী সুবিধা হবে, কারন, গ্রাফিকাল এবং কোডিং দুটোতেই কাজ করতে পারবেন।

৩। একটা ডট.টিকে ডোমেইন। ফ্রিতে পাওয়া যাবে। http://www.dot.tk/

কার্যপ্রণালী:

ড্রপ বক্স ইন্সটল করলে আপনার কম্পিউটারে একটা ড্রপ বক্স নামে ফোল্ডার তৈরী হবে।

নামে যে ফোল্ডার টি থাকবে সেটাই হবে আমাদের সার্ভার। এখানে যে কোন ফাইল রাখলেই সেটার একটা পাবলিক লিংক পাওয়া যাবে। তার মানে হচ্ছে আপনি এখানে যে ফাইলই রাখেন না কেন, যে কোন জায়গা থেকে একটা লিংকের মাধ্যমে এই ফাইল টা আপনি পাবেন। এখানে যে ফাইল টা থাকবে তা স্বয়ংক্রিয় ভাবে ওয়েবে আপ হয়ে যাবে।

এবার ওয়েব সাইট বিল্ডারে গিয়ে একটা পেজ বানান। ধরা যাক ইনডেক্স পেজ টা বানালেন। সেভ করার পর রিলেটেড ফাইল সহ ইনডেক্স পেজ টি ড্রপ বক্সের পাবলিক ফোল্ডারে রাখুন।

য়াল রাখবেন ড্রপ বক্স সফটওয়ার টা চালু আছে কিনা, না থাকলে চালু করে নিন। পাবলিক ফোল্ডারে গিয়ে ইনডেক্স পেজ টিতে রাইট ক্লিক করলেই পাবলিক লিংক টা পাওয়া যাবে।

এটাই আপনার ওয়েব সাইটের লিংক। এত বড় লিংক দেখে ভয় পাওয়ার কিছু নাই। আমরা এটা ছোট করে ফেলবো। লিংক টা চেক করে দেখেন কাজ করে কিনা।

ডোমেইন: ডট.টিকে তে গিয়ে ফ্রিতে একটা ডোমেইন নেম নিয়ে নিন। ডোমেইন: ডট.টিকে তে গিয়ে ফ্রিতে একটা ডোমেইন নেম নিয়ে নিন। ইউ আর এল এ গিয়ে ড্রপ বক্সের লিংক টা লাগিয়ে দিন। হয়ে গেল, আপনার ওয়েব সাইট।

dropbox-01

dropbox-02

 

আমি বাবু সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার, দেশটিভি

আমি বাবু

সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার, দেশটিভি

Comment

comments

What's your reaction?

Excited
0
Happy
0
In Love
0
Not Sure
0
Silly
0

Comments are closed.

টিপস্‌ এন্ড ট্রিকস্‌

হ্যাকড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফিরিয়ে আনবেন ?

১#হ্যাকড হওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টফিরিয়ে আনুন ই-মেইল এড়্রেস বা মোবাইল নম্বর ভেরিফিকেশন এর মাধ্যমে: আপনি আপনার ...
Next Article:

0 %