অ্যাপার্চার কি ?

0

আপনি যখন ক্যামেরার টেকনিক্যাল সাইটগুলো দেখেন তখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল এর অ্যাপার্চার রেঞ্জ দেখা। অ্যাপার্চার কি? ভালো অ্যাপার্চার রেঞ্জ কেমন? এবং ডিজিটাল ক্যামেরা নির্বাচনকালে অ্যাপার্চারের ভুমিকা কি?

ক্যামেরার লেন্স এর আসল কাজ হল আলো সংগ্রহ করা। একটি লেন্সের অ্যাপার্চার হল লেন্স খোলার একটি ব্যাসার্ধ যা সাধারনত আইরিস দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। অ্যাপার্চারের ব্যাস যত বড় হবে তত বেশি পরিমান আলো ইমেজ সেন্সরে ঢুকবে। অ্যাপার্চার সাধারনত F-stop, উদাহরণস্বরূপ F2.8 or f/2.8 দ্বারা প্রকাশ করা হয়। The smaller the F-stop নাম্বারটি যত কম হবে ক্যামেরার লেন্স তত বেশি খুলবে। বাস্তবে যদি না আপনি ফিক্স অ্যাপার্চার ব্যাবহার করেন তবে লেন্সের অ্যাপার্চারের রেঞ্জ সাধারনত f-stops পর্যন্তই হয়। আপনি যখন ক্যামেরার অ্যাপার্চারের রেঞ্জ দেখবেন তখন এর নাম্বার গুলো বিভিন্নভাবে দেয়া থাকে। কিছু কমন নাম্বার নিন্মে দেয়া হল:

Aperture-rang
• Maximum Aperture:

Apature-2.1

এটার মানে হল ক্যামেরার লেন্সের জন্য অ্যাপার্চারের সর্বোচ্চ রেঞ্জ হল F2.8.

  • Aperture Range:

Apature-2.2

এখানে সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন অ্যাপার্চার বোঝানো হচ্ছে।

  • Maximum Wide-Angle and Telephoto Apertures:

Apature-2.3

এটা সর্বোচ্চ ওয়াইড এঙ্গেলের জন্য অ্যাপার্চার। সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন অ্যাপার্চার নির্ণয় করা খুব বেশি কঠিন না। সর্বনিম্ন অ্যাপার্চারের রেঞ্জ খুবই ছোট হয় যেমন F8, F11, F16 or F22. ফাস্ট লেন্স সেটাকেই বলে যেটার সর্বোচ্চ অ্যাপার্চার আছে।

একটি আদর্শ অ্যাপার্চার রেঞ্জ:

একটি আদর্শ অ্যাপার্চার পরিসীমার জন্য আমার ব্যক্তিগত মতামত F1.8 – F16

এর মাধ্যমে আমরা এটা নিশ্চিত হতে পারি যে একটি ক্যামেরার অ্যাপার্চার রেঞ্জ F1.8 থেকে F16; সর্বোচ্চ অ্যাপার্চার F1.8, এবং সর্বনিম্ন F16।

সর্বনিম্ন এবং সর্বোচ্চ অ্যাপার্চারের মধ্যে ৫ টি f-stops আছে। যদি আপনার ক্যামেরার লেন্স F5.6 অ্যাপার্চারে ফিক্স করা থাকে তবে এটাকে 1 f-stop দিয়ে বন্ধ করুন অর্থাৎ F8 দিয়ে সিলেক্ট করুন। আর যদি 1 f-stop দিয়ে খোলা হয় তবে F4. দিয়ে বন্ধ হবে।

Apature-2.4.1

কিভাবে একটি সর্বোচ্চ বড় অ্যাপার্চার প্রাসঙ্গিক হয়?

একটি সর্বোচ্চ বড় অ্যাপার্চার যেকোনো ছোট অ্যাপার্চারের তুলনায় ভালো, কারন এটা ছবি তোলার ক্ষেত্রে একজন ফটোগ্রাফারকে যথেষ্ট ব্যাপ্তি প্রদান করে। উদাহরণস্বরূপ এটা প্রায় সুস্পষ্ট যে অ্যাপার্চার যত বড় হবে আপনার ডিজিটাল ক্যামেরা অল্প আলোতে তত বেশি ভালো ছবি তুলতে সক্ষম হবে। একটি সর্বোট বড় অ্যাপার্চার আপনাকে দ্রুত গতির শাটার স্পিডের সাথে ছবি তুলতে সাহায্য করবে। সুতরাং মনে করুন আপনার আপনার ডিজিটাল ক্যামেরার লাইট মিটার ওই জায়গার এক্সপোজার নির্ণয় করতে পারে যেখনে আপনার অ্যাপার্চার F4 এবং শাটার স্পিড 1/60 sec।

Apature-2.5দ্রুত গতির শাটার স্পিড ব্যাবহার করে অ্যাকশন ফ্রিজ করার জন্য আপনাকে অ্যাপার্চার খুলতে হবে যাতে করে খুব অল্প সময়ের মধ্যে পর্যাপ্ত পরিমান আলো আপনার লেন্সে প্রবেশ করতে পারে। (ধরুন, 1/250 sec.) প্রতিটি শাটার স্পিড বাড়ানোর সময় আমরা উপরের দিকে যাবো, অর্থাৎ আমরা f-stop খুলবো। 1/60 sec. থেকে 1/250 sec. এ দুই ধাপ বেড়েছে, তাই আমরা অ্যাপার্চার F4 থেকে  F1.8 পর্যন্ত 2 f-stops খুলবো। নোট  করুন ক্যামেরা F4 এ 1/60 sec., F2.8এ 1/125 sec. এবং F1.8 এ 1/250 sec এ সঠিক এক্সপোজার দেয়। যদিও তিনটি কম্বিনেশনই ক্যামেরাতে একই পরিমান আলো আসতে সাহায্য করে।

ডিজিটাল ক্যামেরা যদি অটো মুডে সেট করা থাকে তবে আপনি যে কোন সিন মুড সিলেক্ট করতে পারেন এবং আপনার ক্যামেরা অটোম্যাটিক্যালি সিন মুড অনুযায়ী ফাস্ট শাটার স্পিড এবং অ্যাপার্চার সেট করে নিবে। একইভাবে শাটার-অগ্রাধিকার মোডে, আপনি যে কোন গতির (দ্রুত বা ধীর) শাটার যা বেছে নিতে পারেন, এবং ক্যামেরা  সেই সঠিক এক্সপোজারের  জন্য উপযুক্ত অ্যাপার্চার নির্বাচন করে নিবে।

ধরে নিন আপনার ডিজিটাল ক্যামেরায় অ্যাপার্চার সর্বোচ্চ F2.8 পর্যন্ত খোলা যায়। এখন আপনি যদি শাটার স্পিড 1/250 sec. সিলেক্ট করেন তবে আপনার ক্যামেরা F2.8 এর  উপরে অ্যাপার্চার সেট করতে পারবে না। তখন ক্যামেরা আপনাকে “underexposure” ওয়ার্নিং দিবে। এই অবস্থায় যদি আপনি ছবি তোলেন তবে আপনার ছবি underexposed  হবে।

একইভাবে আপনি যদি 1/4 sec. এর শাটার স্পিড সিলেক্ট করেন এবং লেন্সে যদি সর্বনিম্ন F8 অ্যাপার্চারে ক্লোজ ডাউন থাকে তবে ক্যামেরা আপনাকে ছবিতে “overexposure” দিবে এবং লেন্স সর্বনিম্ন F8 ক্লোজ ডাউন হবে। এই অবস্থায় যদি আপনি ছবি তোলেন তবে আপনার ছবি 2 f-stops পর্যন্ত overexposed হবে।

কিভাবে একটি নূন্যতম ছোট অ্যাপার্চার প্রাসঙ্গিক হয়?
একটি নূন্যতম ছোট অ্যাপার্চার যেকোনো বড় অ্যাপার্চারের তুলনায় ভালো, কারন এটা ছবি তোলার ক্ষেত্রে একজন ফটোগ্রাফারকে যথেষ্ট ব্যাপ্তি প্রদান করে।
ধরুন আমরা কোন বহমান জলের ছবি তুলবো। আগেই বলা হয়েছে বহমান জলধারার ছবি তুলতে গেলে ধীর গতির শাটার স্পিড ব্যাবহার করতে হবে যাতে করে জল প্রবাহের প্রতিটি মোশন ক্যামেরায় ধরা পড়ে। এতে করে আপনি একটি ভালো ছবি তুলতে সক্ষম হবেন।
সুতরাং মনে করুন আপনার আপনার ডিজিটাল ক্যামেরার লাইট মিটার একটি আলোকোজ্জ্বল দিনের এক্সপোজার নির্ণয় করতে পারে যেখনে আপনার অ্যাপার্চার F8 এবং শাটার স্পিড 1/125 sec।

Apature-2.7

যদি আপনি অত্যন্ত ধীর গতির শাটার স্পিড ব্যাবহার করতে ছান তার মানে এই হবে যে অ্যাপার্চার বন্ধ করার মাধ্যমে আপনি ক্যামেরায় কম আলো আসতে দিচ্ছেন।

ধরুন,আপনি শাটার স্পিড খোলা থাকার সময় বাড়িয়ে দিলেন কারন আপনি চাচ্ছেন আলো ক্যামেরার ভেতরে পৌছাক, একইসাথে আপনি যদি একটি সঠিক এক্সপোজড ছবি চান তবে আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যাতে বেশি আলো ক্যামেরায় ঢুকতে না পারে। এতে আপনার ছবি ঝলসে যাবার সম্ভাবনা থাকে।

কিন্তু কি হবে যখন আপনার ডিজিটাল ক্যামেরার লেন্স সর্বনিম্ন F8 তে বন্ধ হয়ে যায়? আপনি তখন 1/125 sec. শাটার স্পিডে আটকে থাকবেন। যদি আপনি F8 এর 1/30 sec.ব্যাবহার করেন  তবে ছবি overexposed হয়ে যাবে, অর্থাৎ ঝলসে যাবে।যদি  F8 এর 1/125 sec. এ ছবি তোলেন তবে আপনার ছবিতে সঠিক এক্সপোজার আসবে।

যদি আপনার ডিজিটাল ক্যামেরা F16 এ ক্লোজ ডাউন হয়ে যায়, তবে আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। F8 এ 1/125 sec. F16 এর 1/30 sec. এর, যার মানে হল আপনি ছবিতে সঠিক এক্সপজারের পাশাপাশি জল প্রবাহের পারফেক্ট ব্লার এফেক্ট পাচ্ছেন।

Apature-2.8

অ্যাপার্চার এবং  ফিল্ডের গভীরতা (DOF)
যদিও এ ব্যাপারে আমরা আগেও আলোচনা করেছি তারপরও এখন আরেকবার আলোচনা করবো।
ফিল্ডের গভীরতা বলতে অবজেক্ট ফোকাসের দূরত্বকে বঝায়
কিছু সময় আছে যখন আপনি একটি ভালো ফিল্ডের গভীরতা আশা করেন, অর্থাৎ অবজেক্ট আপনার কাছেই আছে কিন্তু ফোকাস করাটাই নাগালের বাইরে। এমন তখনই হয় যখন আপনি কোন ল্যান্ডস্কেপের একটা ভালো ছবি তুলতে চান।
আবার অনেক সময় আপনি পোট্রেইট ছবি তুলতে চান যেখানে সাবজেক্ট এবং অবজেক্টকে আলাদাভাবে দেখাতে চান অর্থাৎ সাবজেক্টের ফোকাস হবে শার্প কিন্তু বেকগ্রাউন্ড হবে একদম ঝাপসা। এই ক্ষেত্রে, আপনি ফিল্ডের একটি অগভীর গভীরতা চাইবেন।
DOF প্রভাবিত করার একটা উপায় হল যথাযথ অ্যাপারচার নির্বাচন করা।

চলতি রীতি হল:

  • বড় অ্যাপার্চার সিলেক্ট করুন। যেমন f/2.8 সিলেক্ট করে পেতে পারেন একটি অগভীর DOF
  • ছোট অ্যাপার্চার সিলেক্ট করুন । যেমন f/8.0 সিলেক্ট করে আপনি পেতে পারেন একটি আদর্শ DOF

Apature-2.9

এখানে কিছু ছবি দেয়া হল যেখানে অ্যাপার্চার ব্যাবহারের মাধ্যমে DOF কে প্রভাবিত করা হয়েছে:

Apature-2.10

নোট: যেহেতু আমরা DOF নিয়ে আলোচনয় আছি,  DOF  ফোকাল লেন্থ পরিবর্তন করতে পারে। ছোট ফোকাল লেন্থ DOF বাড়িয়ে দেয়, একটি লম্বা ফোকাল লেন্থ আবার অগভীর DOF প্রদান করে। অর্থাৎ আপনি যদি জুম করেন তবে DOF কমে যাবে।

ছোট ইমেজ সেন্সরের ফলে ডিজিটাল ক্যামেরা ছোট ফোকাল লেন্থ ব্যাবহার করে যা কিনা অগভীর ফিল্ড নির্ণয়ের ক্ষেত্রে বড় অ্যাপার্চার ব্যাবহার থেকেও খুবই কষ্টকর। উপরের উদাহরণে অগভীর DOF পেতে আমরা বড় অ্যাপার্চার এবং লম্বা ফোকাল লেন্থ ব্যাবহার করেছি।

সংক্ষিপ্তবৃত্তি

একটি সর্বোচ্চ বড় আকারের অ্যাপার্চার ভালো, কারন এটা ইমেজ সেন্সরে অনেক আলো ঢুকতে সাহায্য করে এবং আপনাকে দ্রুত গতির শাটার স্পিড ব্যাবহারেও সাহায্য করে। দ্রুত গতির শাটার স্পিড সঠিক অ্যাকশনটি ফ্রিজ করতে এবং ক্যামেরা শেক সরাতে সাহায্য করে। এতে করে আপনার ছবি ঝাপসা আসবে না।

বড় অ্যাপার্চারের আরও একটি সুবিধা হল যে এটি একটি অগভীর ফিল্ড  প্রদান করে। এটা ব্যাকগ্রাউন্ডকে এমনভাবে ঝাপসা করে যাতে আপনার সাবজেক্টটি আলাদাভাবে বোঝা যায়। একটি নুন্যতম ছোট অ্যাপার্চারও ভালো, কারন এতে আপনি একটি আলোকোজ্জ্বল দিনে ধীর গতির শাটার স্পিড ব্যাবহার করতে পারবেন। নুন্যতম ছোট অ্যাপার্চার ব্যাবহারের আরেকটি সুবিধা হল এটি ফিল্ডের গভীরতা বাড়ায়। একটি ভালো গভীর ফিল্ড ল্যান্ডস্কেপের ছবি তোলার ক্ষেত্রে ভালো কাজে দেয়।

জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায় ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার

জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার

Comment

comments

Comments are closed.